স্ত্রীকে না মারতে পেরে প্রতিবেশির ৬ বছরের বাচ্চাকে হাতুড়ির আঘাতে হত্যা

রিয়াদ আহম্মেদ
৩১ জুলাই ২০১৯, ১২:২৭ পূর্বাহ্ন
Link Copied!

কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচরে ৬ বছরের এক শিশুকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। নিহত শিশুর নাম নিলয়। সে কুলিয়ারচর পৌর এলাকার ৯নং ওয়ার্ডের মাসকান্দি গ্রামের আনোয়ারুলের ছেলে। আর এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছেন একই গ্রামের হাবিব মিয়া। জানা যায়, কুলিয়ারচর পৌর এলাকার ৯নং ওয়ার্ডের মাসকান্দি গ্রামের মৃত আব্দুল জলিল জিল্লুর ছেলে হাবিব মিয়া সোমবার (২৯ জুলাই) দুপুরে পারিবারিক বিষয় নিয়ে স্ত্রীর সঙ্গে ঝগড়া শুরু করে। ঝগড়ার একপর্যায়ে অভিযুক্ত হাবিব তার স্ত্রী পুতুলকে মারপিট করতে শুরু করে। এসময় স্ত্রী পুতুল (৪৫) মারের হাত থেকে বাঁচার জন্য দৌড়ে বাথরুমে আশ্রয় নেয়। কিন্তু সেখানেও আত্মরক্ষার উপায় না পেয়ে দৌঁড়ে পার্শ্ববর্তী মোঃ জাহাঙ্গীর মোল্লার বাড়িতে গিয়ে ওঠে।

হাবিব সেখানেও স্ত্রীকে মারপিট করার জন্য সেখানে গেলে স্থানীয়রা স্ত্রী পুতুলকে রক্ষা করে। সবার উপস্থিতিতে স্ত্রীকে মারপিট করতে না পেরে অভিযুক্ত হবিব সেখান থেকে বাড়ি ফিরতে উদ্যত হয়। ফেরার পথে রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে থাকা পার্শ্ববর্তী বাড়ীর আনোয়ারুলের ৬ বছরের শিশু ছেলে নিলয়ের মাথায় ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে হাতুড়ি দিয়ে এলাপাথাড়ি আঘাত করা শুরু করে এবং এতে শিশু নিলয় গুরুতর আহত হয়। এ সময় স্থানীয় আলমগীর মোল্লার স্ত্রী আখি বেগম (৪৫) অভিযুক্ত হাবিবের হাত থেকে শিশু নিলয়কে রক্ষা করতে গেলে হাবিব তাকেও আঘাত করে পালিয়ে যায়। আহত শিশু নিলয়ের চিৎকার শুনে এলাকাবাসী ঘটনাস্থলে এসে রক্তাক্ত ও গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে কুলিয়ারচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়।

হাতুড়িপেটার শিকার শিশু নিলয়ের অবস্থা আশঙ্কাজনক দেখে হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই সোমবার রাত সাড়ে ১০টায় নিলয়ের মৃত্যু হয়।

এদিকে শিশু নিলয়ের মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে সোমবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে ঘাতক হাবিব মিয়ার স্ত্রী পুতুল বেগমকে আটক করে কুলিয়ারচর থানা পুলিশ। পরে মঙ্গলবার (৩০ জুলাই) দুপুরে কুলিয়ারচর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিলয়ের লাশের ময়নাতদন্ত শুরু করেন।

কুলিয়ারচর থানার ওসি আব্দুল হাই তালুকদার বলেন, এ ঘটনায় একজনকে আটক করা হয়েছে। ঘাতক হাবিব মিয়াকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। এ বিষয়ে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।